কোটিপতি সেই কুলি হিরণ মিয়াকে দুদকে তলব

ঢাকা: হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কুলি (লাগেজ স্টাফ) হিরণ মিয়াকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী থেকে কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে।
বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে তাকে তলব করে নোটিশ পাঠান দুদকের উপপরিচালক মো. নাসির উদ্দিন। নোটিশে তাকে আগামি ১৯ আগস্টে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে এসে বক্তব্য প্রদানের জন্য বলা হয়েছে। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে আসা অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র নিয়ে আসতে বলা হয়েছে। দুদক সূত্র বাংলামেইলকে এ সব তথ্য নিশ্চিত করেছে।
সূত্রটি জানায়, হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের লাগেজ স্টাফ (কুলি) বা চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী হলেন হিরণ মিয়া। তিনি সাধারণ যাত্রীর লাগেজ ও লাগেজের মালামাল চুরির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ গড়ে তুলেছেন বলে দুদকে অভিযোগ আসে। ওই অভিযোগে বলা আছে, হিরণ মিয়া এখন ঢাকার বুকে অবস্থিত দুইটি বাড়ির মালিক। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরার দক্ষিণখানে আজমপুর রোডে ৭ তলা বাড়ি এবং একই এলাকার ৩ নাম্বার রোডে ৩ তলার একটি বাড়ি আছে হিরণ মিয়ার। যেগুলোর আনুমানিক মূল্য ১৫ থেকে ২০ কোটি টাকারও বেশি। সেই সঙ্গে তার স্ত্রী রুনা লায়লার স্বর্ণারলঙ্কারসহ ব্যাংক ব্যালেন্স আছে কয়েক কোটি টাকার।
তবে হিরণ মিয়া এতোটাই ধূর্ত যে নিজের বাড়ি থাকা সত্ত্বেও সে থাকে উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের ২৭ নম্বর রোডের একটি (হাউজ নাম্বার-১৪) একটি ভাড়া বাড়িতে। একজন লাগেজ স্টাফের বেতন অনুযায়ী ঢাকায় থাকা-খাওয়ার পর টাকা জমানো দুঃসাধ্য ব্যাপার। অথচ হিরণ মিয়া এখন কোটি কোটি টাকার সম্পদের মালিক। আর তিনি বর্তমানে যে পরিমাণ সম্পদের মালিক, তা তার বৈধ আয়ের সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে অসঙ্গতিপূর্ণ। যা দুদকের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসবে বলেও উল্লেখ করা আছে দুদকে আসা ওই অভিযোগে।
দুদক সূত্র আরও জানায়, হিরণ মিয়ার বিরুদ্ধে এইসব অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আসলে তা যাচাই-বাছাই শেষে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এজন্য গত ২৭ জুন উপ-পরিচাল মো. নাসির উদ্দিনকে অনুসন্ধানী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। মো. নাসির উদ্দিন অনুসন্ধান প্রক্রিয়ায় অভিযোগ সংশ্লিষ্ট ব্যাপারে জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আজ তলব নোটিশ দিয়েছেন। নোটিশটি তার উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের ২৭ নাম্বার রোডের ওই (হাউজ নাম্বার-১৪) ভাড়া বাড়ির ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র নিয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে ওই নোটিশে। এছাড়া খুব শিগগিরই অভিযোগ সংশ্লিষ্ট ব্যাপারে জানতে হিরণ মিয়ার স্ত্রী রুনা লায়লাকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হবে।

Please follow and like us:
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *